মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৫ আশ্বিন ১৪২৮

মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী হত্যা: ফুটেজে দেখা সেই যুবক আটক
চট্টগ্রাম ব্যুরো, সুন্নীবার্তা ডটকম
প্রকাশ: শনিবার, ১১ জুন, ২০১৬, ৩:২১ পিএম  Count : 788

                                                            
গ্রেপ্তার শাহ জামানকে মোবাইল ফোন হাতের ব্যক্তি (গোলচিহ্নিত) বলে সন্দেহ করছে পুলিশ। রাস্তার অপর পাশে (ওপরের গোলচিহ্ন) ছেলেকে নিয়ে যাচ্ছেন এসপিপত্নী মিতু।

চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যায় হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সিসিটিভির ফুটেজে দেখা শাহ জামান ওরফে রবিন (২৮) নামের এক যুবককে আটক করা হয়েছে অবশেষে আটক করেছে আইনশৃংখলা বাহিনীর একটি ইউনিট। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি এ ঘটনার ‘মূল হোতা’।

আজ শনিবার নগর পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম নগর পুলিশ কমিশনার মো. ইকবাল বাহার এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, আজ সকালে বায়েজিদ বোস্তামী থানার শীতল ঝরনা এলাকা থেকে এই যুবককে আটক করা হয়। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ভিডিও ফুটেজ দেখে তাঁকে শনাক্ত করা হয়। ঘটনার সময় ঘটনাস্থলের পাশেই তিনি মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন। তিনি ঘটনার ‘মূল হোতা’ হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।এ নিয়ে এসপিপত্নী হত্যার ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করার কথা জানালো পুলিশ। 

গত বুধবার হাটহাজারী থেকে আবু নসুর গুন্নু নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, যাকে ইসলামী ছাত্র শিবিরের সাবেক কর্মী বলেছে পুলিশ।।

এছাড়া সিসিটিভি ফুটেজে হত্যকাণ্ডের পর চলে যাওয়া কালো রংয়ের মাইক্রোবাসটি চালকসহ আটক করে।   আটক কালো মাইক্রোবাস বিষয়ে সিএমপি কমিশনার বলেন, “এখন পর্যন্ত মাইক্রোবাসে সন্দেহজনক কিছু মনে হয়নি। মাইক্রোবাসটি আবুল খায়ের কোম্পানির কর্মকর্তাদের আনা নেওয়া করে। প্রতিদিন ওই পথে যায়। তবে এর চালককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।।
                                                            
৫ জুন রোববার সকাল পৌনে ৭টায় ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে গিয়ে নগরীর জিইসি মোড়ে যাওয়ার সময় খুন হন চট্টগ্রামে জঙ্গি দমনে বেশ কয়েকটি অভিযানে নেতৃত্বদাতা পুলিশ কর্মকর্তা বাবুলের স্ত্রী মিতু। তাকে ছুরি মেরে ও গুলি করে হত্যা করা হয়। ।পরে ওই এলাকার কয়েকটি প্রতিষ্ঠান থেকে সংগ্রহ করা সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, হত্যাকাণ্ডের আগে পুলিশ সুপারের স্ত্রী মিতু তার সন্তানকে নিয়ে ওআর নিজাম রোড থেকে বের হওয়ার পর এক যুবক মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে হত্যাকাণ্ডস্থলের দিকে এগিয়ে যায়।

সিএমপি কমিশনার ইকবাল বাহার বলেন, “রাস্তার অপর প্রান্ত থেকে যে ব্যক্তি মোবাইল ফোনে কথা বলে যাচ্ছিল, শাহ জামান সে ব্যক্তি হতে পারে। তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।”রোববার এ হত্যায় মামলায় শাহ জামানকে আদালতে পাঠানো বলে জানান তিনি।

শুক্রবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে মিতু হত্যার প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে ছোরাসহ এক যুবককে আটকের বিষয়ে তিনি বলেন, “একবার পাওয়া যাচ্ছে সে ভবঘুরে, আবার রিকশাওয়ালা। সে কেন ওখানে গিয়েছিল এবং সবকিছু মাথায় রেখে কাজ করা হচ্ছে।”



আরও সংবাদ   বিষয়:  এসপি   বাবুল আক্তার   স্ত্রী হত্যা   ফুটেজ   যুবক   আটক   




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক ও সম্পাদক :---
"মা নীড়" ১৩২/৩ আহমদবাগ, সবুজবাগ, ঢাকা-১২১৪
ফোন : +৮৮-০২-৭২৭৫১০৭, মোবাইল : ০১৭৩৯-৩৬০৮৬৩, ই-মেইল : [email protected]